পেঁয়াজ কাটার সময় চোখে পানি আসে কেন

পাকঘরে মা পেঁয়াজ কাটছে আর পাশের ঘরে বসে আমাদের ভাইবোনের চোখে শুধু জ্বালা করছে আর পানি আসছে। অনেকটা কান্নার মতো। এটা হয়তো সবার ঘরেরই একটা নিত্যনৈমিত্তিক দৃশ্য। আচ্ছা আপনি কি একটিবার ভেবেছেন পেঁয়াজ কাটার সময় চোখ দিয়ে পানি পড়ে বা জ্বালাপোড়া করা? এছাড়াও এর সমাধান কখনো খুঁজেছেন? হয়তো খুঁজেননি। আবার হয়তো ভাবছেন এর সমাধান আছে? জি অবশ্যই আছে। আজকের ছবি লেখায় আপনাদের এই পেঁয়াজ কাটার সময় কেন চোখ জ্বালাপোড়া করে এবং এ থেকে পরিত্রাণের উপায়টাও বলবো। চলুন শুরু করা যাক:

* পেঁয়াজ কাটার সময় চোখ জ্বালাপোড়া হয় কেন ?

আমরা আসলে যখন পেঁয়াজ কাটার তখন মূলত আমরা এর কোষ কাটি। যার জন্য এর ভেতরের পদার্থগুলো বের হয়ে যায়। আর সেই কোষের ভেতরে থাকা অ্যামিনো এসিড আর সালফাইড এসিড মিলে তৈরি হয়ে যায় সালফেনিক এপিঠ। আর সেই কোষে থাকা এনজাইগুলো এই সালফেনিক এসিডের সাথে বিক্রিয়া করে। আর এই বিক্রিয়ার ফলে তৈরি হয় প্রোপেনিয়াল এস অক্সাইড নামের একটি সালফারের উদ্বায়ী যৌগ। আর এই যৌগ বাতাসে ভেসে চলতে চলতে আমাদের চোখ আসে।

এরপর এটি আমাদের চোখের জ্বলীয় অংশের সাথে বিক্রিয়া করে আর তৈরি করে সালফিউরিক এসিড। মূলত এই এসিডের জন্য আমাদের চোখ জ্বালাপোড়া করে থাকে। আর এই চোখ থেকে পানি বের হবার কারণ হচ্ছে ভেতর থেকে বুকে পড়া এসিড বের হয় এই পানির দ্বারাই।

* পেঁয়াজ কাটার সময় এই জ্বালাপোড়া থেকে সমাধান:

সমস্যা যেহেতু আছে এর সমাধান আছে। কিছু পদক্ষেপ নিলে আপনি এর সমাধান বের করতে পারবেন। চলুন জেনে নেয়া যাক এর সমাধান:

১. কাটার আগে পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। পেঁয়াজের খোসা ছাড়িয়ে পানিতে ভেজান। এতে করে অ্যাসিড কমে যাবে চোখের পানিও ফেলতে হবে না।

২. কাটার আগে ৩০ মিনিট ফ্রিজে রাখুন। এতে ঠান্ডা জায়গায় পেঁয়াজের গ্যাস তৈরি প্রতিরোধ গড়ে তুলবে।

৩. মাঝ বরাবর কাটুন। পেঁয়াজের মাথা সবচেয়ে বেশি ঝাঁঝালো। তাই মাঝ বরাবর কাটলে এ থেকে পরিত্রাণ পাওয়া সম্ভব।

৪. ছুরি ব্যবহার করুন। ধারালো ছুরি ব্যবহার করলে কোন কম ভাঙবে। আর এতে গ্যাস কম উৎপন্ন হবে।

আশা করি আপনি পরবর্তীতে এই পেঁয়াজের ধক থেকে সহজেই পরিত্রাণ পাবেন।

About Md Sanuar Mahmud

Nothing special

Check Also

EngineersThought Thumbnail

জনপ্রিয় স্কলার ড. জাকির নায়েক

আমরা যারা ইসলামি বক্তব্য বা ইসলামি বয়ান শুনতে পছন্দ করে থাকি তাদের কাছে একটি পরিচিত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *